ছেলেদের মুখের ব্রণ দূর করার ঘরোয়া উপায়

ছেলেদের মুখের ব্রণ দূর করার কিছু ঘরোয়া উপায় এই পোস্টের মাধ্যমে তুলে ধরা হবে। আগে জানা উচিত যে কি কারনে আমাদের মুখে ব্রণ হয়ে থাকে। যেসব কারণে মুখে ব্রণ হয়ে থাকে সেসব বিষয় থেকে খুবই সতর্ক থাকতে হবে। ব্রণ দূর করার জন্য যেসব জিনিস ব্যবহার করে থাকি কিন্তু আমরা ব্যবহার করেও কোন ফল পাচ্ছিনা এর কারণ হচ্ছে আমাদের মুখে ব্রণ উঠার যে কারণ সেই কারণগুলোই আমরা জানি না। এই কারণ না জানার কারণেও বারবার মুখে ব্রণ দেখা দেয়।

ত্বকের জন্য অনেক বড় একটি সমস্যা এই ব্রণ। অনেক কিছুই তো ব্যবহার করে দেখেছেন তো কোন খরচ ছাড়া খুব সহজ ভাবেই ঘরোয়া পদ্ধতিতে ব্রণ-দূর-করার-উপায় গুলো দেখে নিন।  আমরা জানব কি কারনে আমাদের ব্রণ উঠে এবং কি কি উপায়ে ব্রণ দূর করানো যায়।

কি কি কারণে ব্রণ হতে পারে

ব্রণের এই সমস্যাটি আমাদের বেশ খারাপ লাগে এমন মুখ মানুষকে দেখাতেও ইচ্ছে হয় না। ছেলেদের মুখের ব্রণ হওয়ার অনেকগুলো কারণ রয়েছে, সেই কারণগুলো নিচে একটি তালিকা তৈরি করা হলো।

  • মুখের মধ্যে তৈলাক্ত ভাব থেকে ব্রণ হতে পারে।
  • অনেকেই আছেন যাদের বংশগত কিছু ব্রণ আছে।
  • খাবার-দাবারের অনিয়মের জন্য বা পানি পান করা কম হলে হতে পারে এই ব্রণ।
  • মুখের অযত্নের কারণে হতে পারে এই ব্রণ, রাস্তার ধুলাবালি, অতিরিক্ত শুকনো খাবার খাওয়া থেকে হতে পারে ব্রণ।

ব্রণ দূর করার কিছু ঘরোয়া উপায়

সাধারণত প্রাপ্তবয়স্ক ছেলে মেয়েদের এই সমস্যাটি বেশি হয়ে থাকে। নানা কারণেই এ সমস্যাটি হতে পারে,  অনেকেই অনেক ধরনের জিনিস ব্যবহার করে থাকেন এই ব্রণের জন্য তো আজকে ঘরোয়া কিছু উপায় এই পোস্টের মাধ্যমে দেখানো হবে । যাদের ব্রণের সমস্যা গুলো আছে আশা করি এই ঘরোয়া উপায়ে থেকেই বিদায় নিতে পারে ব্রণ, তো চলুন দেখে নেই সেই ঘরোয়া উপায় গুলো।

পাকা পেঁপে

  • পেঁপের কয়েকটি টুকরো পরিষ্কার করে নিয়ে ব্লেন্ডার করুন।
  • পেঁপে থেকে যে পেস্ট হবে তার সাথে আপনি বেসন, চালের গুঁড়ো মিশিয়ে নিতে পারেন।
  • ভাল করে মিশিয়ে 5 মিনিট পর মুখে যে ব্রণ গুলো আছে সেই জায়গা গুলোতে ভালো করে মিশিয়ে লাগান।
  • তারপর ২৫ থেকে ৩০ মিনিট লাগিয়ে রাখুন।
  • তারপর ভালো করে ফ্রেশ পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ভালো একটি কাপড় দিয়ে মুছে ফেলুন।

কচি শসা

  • প্রথমে শসাটি গোল গোল টুকরো করে কেটে নিন।
  • তারপর সেই টুকরো গুলো ৩ থেকে ৫ মিনিট ব্রণের যে অংশ আছে সেই অংশের ঘষে নিন।
  • নেওয়ার পর ১৫ থেকে ২০ মিনিট ওই ভাবে মুখে রেখে দিন যাতে ভালোভাবে শসার উপকারী গুণ যেমন ভিটামিন এ, ডি এবং ই এই গুন গুলো ব্রণের কাজ করতে পারে।
  • তারপর ভালো পানি দিয়ে মুখ ফ্রেশ করে ধুয়ে নিন এবং ভালো একটি কাপড় দিয়ে মুখটি মুছে নিন।

কাঁচা ডিমের সাদা অংশ

  • প্রথমে ডিমের ভেতরে থাকা কুসুমটি আলাদা করে ফেলুন।
  • তারপর ডিমের সাদা অংশ আপনার ব্রণে ভাল করে লাগিয়ে কয়েক মিনিট অপেক্ষা করুন।
  • অপেক্ষা করার পর আবার ভালো করে ঘষে নিন তারপর ১০ থেকে ১৫ মিনিট পর ভালো পানি দিয়ে মুখটি ধুয়ে নিন।
  • তারপর আপনার মুখে কোন ক্রিম অথবা লেবুর রস মুখের মধ্যে নিয়ে কতক্ষণ অপেক্ষা করুন।
  • এতে ব্রণ খুব তাড়াতাড়ি বিদায় নিয়ে নিবে।

 তাহলে পোস্টটি পড়ে অবশ্যই  কিছু হলেও ব্রণ দূর করার বা কি কারণে ব্রণ হয় সে ব্যাপারে ধারনা পেয়েছি। এই পোস্টটি যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে অবশ্যই শেয়ার করবেন আপনার আত্মীয়-স্বজন, বন্ধু-বান্ধব এর মধ্যে মুখের ব্রণের আরো মতামত পেতে আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন কমেন্ট বক্সে কমেন্ট এর মাধ্যমে।

Leave a Comment