বাবাকে নিয়ে উক্তি, ক্যাপশন, গল্প, স্ট্যাটাস ও কিছু কথা

একজন বাবা তার সন্তানদের যে কত দিক দিয়ে অবদান রাখে তা আসলে কেউ গুনে হিসাব করতে পারবে না। প্রত্যেক বাবাই চায় তার সন্তানকে মানুষের মত মানুষ করে তোলার আবার অনেক বাবায় আছে যে সন্তানদের প্রতি কোন ভালোবাসা নেই, দয়াময় নেই, কোন ত্যাগ তিতিক্ষা নেই, পাষানের মত। যাই হোক এই পোষ্টের মাধ্যমে বাবাকে নিয়ে যে উক্তি, স্ট্যাটাস, ক্যাপশন ও গল্প গুলো তুলে ধরা হবে আশা করি আপনাদের ভালো লাগবে।

আপনারা অনেকেই আছেন যারা বাবা কে নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় অনেক স্ট্যাটাস, ক্যাপশন, ছন্দ লিখে থাকেন আশা করি এই পোস্টের মাধ্যমে নতুন নতুন কিছু উক্তি, স্ট্যাটাস, ক্যাপশন ও গল্প পাবেন। এবং নিজেদের ইচ্ছা মতো সংগ্রহ করতে পারবেন। 

বাবাকে নিয়ে উক্তি 

> বাবার মত শিক্ষক হয়তোবা আর কোথাও নেই।  

> বাবা ছাড়া জীবন কখনো সম্পূর্ণ হয় না, সারা জীবন অপূর্ণই থেকে যায়। 

> একটি পরিবারের মধ্যে যতই বিপদ আসুক না কেন, একজন বাবা সেই পরিবারের যোদ্ধা হয়ে সব সময় ছায়া হয়ে থাকে। 

> একজন বাবা যতই রাগারাগি করুক না কেন সে কখনো সন্তানের খারাপের জন্য রাগারাগি করে না। 

> একটি সন্তানের প্রতি বাবা কখনোই অযথা রাগারাগি করেন না। তাকে ভালোবাসে বলেই তার সাথে রাগারাগি করে। 

> একটি ছেলে বাবাকে যতই অবহেলা করুক না কেন, কিন্তু বাবার ভালোবাসা কখনই অবহেলা করতে পারবে না। 

বাবাকে নিয়ে স্ট্যাটাস

১. বাবা তো সবাই হতে পারে কিন্তু প্রকৃত বাবা কজন হতে পারে। 

২. বাবা ও মেয়ের মাঝে ভালোবাসার কোন দূরত্ব মানে না, কথাটি চিরন্তন সত্য।

৩. একজন বাবা তার সন্তানকে ঠিক ততটাই সফল বানাতে চায়, যা সে হতে চেয়েছিল। 

৪. আমার কাছে মনে হয় ভালোবাসার অপর নাম হলো বাবা। 

৫. একজন বাবা একটি সন্তানকে বলে না যে তোমাকে ভালোবাসি, কিন্তু তিনি দেখিয়ে দেন যে সে তাকে কতটা ভালোবাসে। 

৬. বাবার হৃদয়টা হল আকাশ সমান সেখানে শুধু সুখ-আনন্দ ছাড়া আর কিছু পাওয়া যায় না। 

৭. বাবার হাতের সেই আলু ভর্তা যেন আজও মুখে ভরে আছে। 

৮. যার বাবা আছে, সেই হয়তো পৃথিবীর সব থেকে বেশি সুখী ব্যক্তি। 

বাবাকে নিয়ে দুঃখের স্ট্যাটাস

১. বাবা কতদিন দেখিনা তোমায়, তোমার সেই ঘরটা হাহাকার করে শুধু তোমার জন্য। 

২. খাটের পাশে পড়ে আছে বাবার ব্যবহারের সেই চশমাটা, শুধু তুমি নেই বাবা। 

৩. বাবার ব্যবহারের সেই গাড়িটা হাতে নিলেই শুধু বারবার তারই কথা মনে পড়ে যায়।  

৪. বাবা তোমার ব্যবহারের সেই সাইকেলটি যেন কাঁদছে তোমার জন্য। 

৫. বাবা তুমি পাশে নেই বলে আমার স্বপ্নগুলো স্বপ্নই রয়ে গেল। 

৬. বাবা,,, আমার ছোটবেলার সেই রাগ ভাঙ্গানোর কথাটাই বারবার মনে পড়ে যায়। 

৭. বাবা কতকাল দেখি না তোমায়, , কেউ বলে না খোকা কেমন আছিস। 

৮. বাবা তোমার দেওয়া সেই জুতাটা আজও যত্ন করে রেখে দিয়েছি, কারণ সেই জুতা দেখেই তোমার কথাগুলো অনুভব করি। 

গরিব বাবার গল্প

বাবা গরীব হতে পারে কিন্তু সে তার সন্তানের স্বপ্নগুলি কখনো পূরণ করতে দ্বিধাবোধ করে না। তার সামর্থ্য না থাকলেও সে তার সবটুকু দিয়ে সেই স্বপ্নগুলো পূরণ করার চেষ্টা করে। বাবা গরীব হতে পারে কিন্তু আমার একটি বৃক্ষ বটগাছ আছে। বাবা যত গরিবই হোক না কেন তার সন্তানদের কাছে তিনি কখনো গরিব মানুষ নয়, সে তার সন্তানদের মাঝে একজন যোদ্ধা ও মহানায়ক।  

একজন গরিব বাবাই জানে তার পরিবারের সবার মুখে হাসি ফোটানোর জন্য তাকে সবকিছু ছেড়ে চলে যেতে হয় অনেক দূরে। বহু দূর যেখানে কোন আপনজন নেই শুধু অচেনা মুখগুলো চেয়ে আছে। বাবা শুধু দুঃখের বোঝা বয়ে বেড়ায় তার পরিবারের সবার মুখে একটু হাসি ফোটানোর জন্য। 

বাবাকে নিয়ে কষ্টের গল্প

এই জীবনের সবটুকু দিয়েও বাবার ঋণ কখনো শোধ করা যাবে না। সে যে আমায় সফল হওয়ার জন্য তার সব সুখ শান্তি ত্যাগ করে, তার বর্তমান ভবিষ্যৎ এর কথা না ভেবে সে শুধু আমার কথাই চিন্তা করেছে। বাবা যে কি জিনিস সেটা হয়তো খারাপ পরিস্থিতিতে না পড়লে বোঝা যায় না। বাবা হল একটি বটগাছের মত সবসময় ছায়া হয়ে আশেপাশেই থেকে যায়। 

২৬ বছর ধরেই তো বাবা শুধু আমাদের জন্যই এত কিছু করছেন। এর বিনিময়ে তাকে আমরা কি দিতে পেরেছি, হ্যাঁ দিতে পেরেছি শুধু এটুকুই যে এক বুক ভরা কষ্ট তা ছাড়া আর কিছু না। হয়তো তুমি একদিন থাকবে না সেদিন শুধু তোমার কথাই ভেবে কান্নায় ভেসে যাবে এ দুচোখ। বাবা তুমি হয়তো আজ এসব কিছু করছ শুধু আমাদের জন্যই। 

বাবাকে নিয়ে লেখা কিছু কথা

পরিবারের সবচেয়ে বড় যোদ্ধা হলো পরিবারের একটি বাবা, কারণ একটি পরিবারের যত বিপদ-আপদ আসুক না কেন তিনি বেঁচে থাকা অবস্থায় বিপদ-আপদের ছায়াও পড়তে দেয় না তার পরিবারকে। পরিবারের বোঝা যত ভারী হোক না কেন সে কখনো মুখ ফসকে বলবে না যে আমার খুব কষ্ট হচ্ছে, কারণ বাবা জিনিসটাই এমন।

সে শুধু তার জীবনটা পরিবার-পরিবার বলেই সারা জীবনটা কাটিয়ে দিল।  হয়তো এই দুনিয়া থেকে একদিন বিদায় নিয়ে যায় চলে যাবে না ফেরার দেশে। পরিবারের সন্তানের যদি বাবা না থাকে সে পরিবারের সন্তান গুলোই বুঝতে পারে যে বাবা থাকাটা কতটা জরুরি। বাবা থাকাটা একটি পরিবারের জন্য কত বড় একটি বৃক্ষ বট বা একটি খুঁটি। 

বাবাকে নিয়ে কবিতা

বাবা

জাহিদুল ইসলাম

বাবা মনে পড়ে শীতের সকাল, তোমার কোলে লুকিয়ে থাকা ;

বাবা মনে পড়ে সেই বিকেল, তোমার আঙুল ধরে হাটতে যাওয়া।

মনে পড়ে যায় সেই রাত ইচ্ছে করে ঘুমিয়ে পড়া তোমার কোলে !

 তোমার রক্তে আমার জন্ম, তোমার শাসনে বেড়ে ওঠা ;

তোমার পরিশ্রমের ঘামের টাকায় বড় হওয়া,

দিনগুলি কেমন করে ভুলি বাবা বলো তুমি।

শীতের রাতে তোমার বুকে উষ্ণতা খুঁজি,

আর গ্রীষ্মের দুপুরে তোমার ছায়ায় পাই শীতলতা।

তুমি সাহস, তুমি শক্তি,

তুমি হারাবার পথ চলা।

তুমি শ্রদ্ধা, তুমি ভালোবাসা,

তুমি আমার জীবন যুদ্ধের অঙ্গীকার।

ভালোবাসি তোমাকে বড় ভালোবাসি,

বাবা শুধু তোমাকেই ভালোবাসি। 

গাঁথা

পাপা কঙ্গোস

চাষার ছেলে প্রশ্ন করল তার বাবাকে, বাবা কবিতা কি ?

চাষা উত্তর দিল।

বীজ বোনা আর ফসল কাটা।

দর্জির ছেলে প্রশ্ন করলো, বাবা কবিতা কি ?

দর্জি উত্তর দিল।

গরম, মজবুত, সুন্দর পোশাক তৈরি করা।

জেলে যে জেলেকে প্রশ্ন করল, বাবা কবিতা কি ?

জেলে উত্তর দিল।

জাল দিয়ে মাছ ধরা আর মাছ বিক্রি করা।

কবির ছেলে প্রশ্ন করল, বাবা কবিতা কি ?

কবি উত্তর দিল।

জানিনা,,, কিন্তু বাছা কবি লেখা মানে কবি নয়। 

আমার বাবা

সান্তানু পাল

আমি হিমালয় দেখিনি,

শুনেছি সেখানে নাকি এভারেজ নামের পৃথিবীর সর্বোচ্চ পর্বতশৃঙ্গ ;

দাঁড়িয়ে আছে মাথা উঁচু করে। 

কিন্তু আমি দেখেছি আমার বাবাকে ?

যিনি তার সক্ষম সন্তানের বিশাল বৃক্ষ বটের মত ;

মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়ে থেকে ছায়া দেন অবিরাম। 

আমি প্রশান্ত মহাসাগরের নীল জল রাশি দেখিনি ;

কখনো মাপতে যায়নি এর গভীরতা। 

কিন্তু দেখেছি আমার বাবাকে,

যার হৃদয়ে এতটাই গভীর যে।

তার অবুঝ সন্তানেরা এই গভীরতা,

যেভাবে ইচ্ছে বিচরণ করতে পারে সামুদ্রিক প্রাণীকুলের মত।  

সর্বশেষ কথা

এই পোষ্টের মাধ্যমে বাবাকে নিয়ে যে কথাগুলো লেখা হয়েছে আশা করি যদি পড়ে থাকেন তাহলে অবশ্যই ভালো লাগবে। যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে অবশ্যই শেয়ার করবেন। এরকম আরো বিভিন্ন ধরনের পোস্ট পেতে এই সাইটটিতে ভিজিট করুন আশা করি এরকম আরো অনেক ভালো ভালো পোস্ট হয়ে যাবে। 

Leave a Comment